ঢাকা ০৬:৩৪ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৭ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
টপ নিউজ :
কুষ্টিয়ায় পুুকুরে ডুবে তিন শিশুর মৃত্যু মরদেহ ফেরত পেতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ দাবী পরিবারের চল্লিশ উর্ধ বয়সী স্কাউটারদের পায়ে হেঁটে ৫০ কিলোমিটার পরিভ্রমণে যাত্রা বেইলি রোডে আগুনে প্রাণ গেল ২ সাংবাদিকের কাচ্চি ভাই নয়, নিচের দোকান থেকে আগুনের সূত্রপাত: র‌্যাব বেইলি রোডে আগুন: মৃতের সংখ্যা বাড়ার কারণ জানালেন চিকিৎসক ৩ ঘণ্টার চেষ্টায় নিয়ন্ত্রণে চট্টগ্রামের নির্মাণাধীন হিমাগারের আগুন বেইলি রোডে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় রাষ্ট্রপতির শোক বেইলি রোডের আগুন লাগা বহুতল ভবনটিতে অগ্নি নির্বাপণ ব্যবস্থা ছিল না: প্রধানমন্ত্রী ভবনে ভেন্টিলেশন ছিল না, নিহতরা ধোঁয়ায় মারা গেছেন

অনলাইনে সব সেবা চালু করল গণমাধ্যম ইনস্টিটিউট

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০১:৫৯:২৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৮ ডিসেম্বর ২০২৩
  • 29

এক ঠিকানায় সরকারি সেবা এই স্লোগানে পথচলা ‘মাইগভ (mygov)’ এ রেজিস্ট্রেশন করা নাগরিকরা জাতীয় গণমাধ্যম ইনস্টিটিউটের সব ধরণের সেবা অনলাইনে নিতে পারবেন।

মাইগভ প্লাটফর্মের মাধ্যমে যে কেউ অনলাইনে প্রশিক্ষণ কোর্সে আবেদন, প্রশিক্ষণ কোর্সে রেজিস্ট্রেশন, ই-সনদপত্র গ্রহণ, অডিটোরিয়াম, বেতার স্টুডিও, ইনস্টিটিউটের টিভি স্টুডিওসহ বিভিন্ন স্থাপনা ভাড়ার আবেদন এবং পেমেন্ট করার সুযোগ পাবেন।

৭ ডিসেম্বর, বৃহস্পতিবার ঢাকায় জাতীয় গণমাধ্যম ইনস্টিটিউট আয়োজিত ‘জাতীয় গণমাধ্যম ইনস্টিটিউট সেবাসমূহ মাইগভ প্ল্যাটফর্মে উন্মুক্তকরণ’ এবং ‘সাইবার সিকিউরিটি ইন ডেইলি লাইফ’ শীর্ষক সেমিনারে একথা জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

জাতীয় গণমাধ্যম ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) নূরুন নাহার হেনা’র সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথি ছিলেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. হুমায়ুন কবীর খোন্দকার।

মো. হুমায়ুন কবীর খোন্দকার তার বক্তব্যে বলেন, সরকার নাগরিকদের ঝামেলামুক্ত সেবা প্রদান করতে চায়। এজন্য দরকার একটা সমন্বিত প্ল্যাটফর্ম। এ উদ্দেশ্যে এসপায়ার টু ইনোভেট (এটুআই) এর সহযোগিতায় সরকার মাইগভ (mygov) প্ল্যাটফরম তৈরি করেছে।

তিনি শুরুতে জাতীয় গণমাধ্যম ইনস্টিটিউটের নাগরিক সেবাসমূহ মাইগভ প্ল্যাটফর্মে উন্মুক্তকরণের ঘোষণা দেন।

হুমায়ুন কবীর খোন্দকার বলেন, জাতীয় গণমাধ্যম ইনস্টিটিউট তার প্রধান সেবাসমূহ মাইগভ (mygov) এ অন্তর্ভুক্ত করায় অত্যন্ত আনন্দিত। আমরা আমাদের সেবাগুলো শতভাগ ডিজিটাইজেশনের আওতায় নিতে চাই। আমাদের সেবাগুলোকে ক্যাশলেস ও পেপারলেস এবং আরও নাগরিকবান্ধব করে গড়তে চাই। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্মার্ট বাংলাদেশের যে স্বপ্ন দেখেছেন তা বাস্তবায়নে অবদান রাখতে চাই।

সভাপতির বক্তব্যে নূরুন নাহার হেনা বলেন, বাংলাদেশ সরকার ২০০৮ সালে ডিজিটাল বাংলাদেশের ঘোষণা দেয়। ২০২৩ সালে স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণের লক্ষ্যে ইন্টারনেটের ব্যবহার সহজলভ্য করেছেন।

অনুষ্ঠানের মুখ্য আলোচক মোল্লা মিজানুর রহমান বলেন, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ ও মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন এবং ইউএনডিপি-এর সহায়তায় পরিচালিত এসপায়ার টু ইনোভেট (এটুআই) প্রোগ্রামের উদ্যোগে আমার সরকার বা মাইগভ প্ল্যাটফর্মটি তৈরি করা হয়েছে। যা ব্যবহার করে র্যাপিড ডিজিটাইজেশন অথবা দ্রুততম সময়ে সরকারি সেবা সমূহকে ডিজিটাইজেশনের কাজ চলমান রয়েছে।

আলোচক তানভীর হাসান জোহা তার আলোচনায় সাইবার নিরাপত্তার বিভিন্ন ঝুঁকিসমূহ ও করণীয় বিষয়ে দিক নির্দেশনা প্রদান করেন।

জাতীয় গণমাধ্যম ইনস্টিটিউটের পরিচালক মো. নজরুল ইসলাম অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বাংলাদেশ সেক্রেটারিয়েট রিপোর্টার্স ফোরামের (বিএসআরএফ) ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এম এ জলিল (মুন্না রায়হান), ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মেহদী আজাদ মাসুম, প্রশিক্ষণ ও গবেষণা সম্পাদক ফারুক আলম, এসপায়ার টু ইনোভেট (এটুআই) প্রোগ্রাম এর যুগ্ম প্রকল্প পরিচালক (যুগ্মসচিব) মোল্লা মিজানুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়াও গণমাধ্যম ইনস্টিটিউটের অতিরিক্ত মহাপরিচালক সুফী জাকির হোসেন, পরিচালক এ, কে, এম আজিজুল হক এবং পরিচালক ড. মো. মারুফ নাওয়াজ সেমিনারে আলোচনা করেন।

সেমিনারে প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়া এবং বিভিন্ন গণমাধ্যমকর্মীসহ মোট ৭০ জন প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন।

দৌলতপুরে প্রান্তিক কৃষকের মাঝে প্রণোদনার বীজ ও সার বিতরন

অনলাইনে সব সেবা চালু করল গণমাধ্যম ইনস্টিটিউট

আপডেট সময় ০১:৫৯:২৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৮ ডিসেম্বর ২০২৩

এক ঠিকানায় সরকারি সেবা এই স্লোগানে পথচলা ‘মাইগভ (mygov)’ এ রেজিস্ট্রেশন করা নাগরিকরা জাতীয় গণমাধ্যম ইনস্টিটিউটের সব ধরণের সেবা অনলাইনে নিতে পারবেন।

মাইগভ প্লাটফর্মের মাধ্যমে যে কেউ অনলাইনে প্রশিক্ষণ কোর্সে আবেদন, প্রশিক্ষণ কোর্সে রেজিস্ট্রেশন, ই-সনদপত্র গ্রহণ, অডিটোরিয়াম, বেতার স্টুডিও, ইনস্টিটিউটের টিভি স্টুডিওসহ বিভিন্ন স্থাপনা ভাড়ার আবেদন এবং পেমেন্ট করার সুযোগ পাবেন।

৭ ডিসেম্বর, বৃহস্পতিবার ঢাকায় জাতীয় গণমাধ্যম ইনস্টিটিউট আয়োজিত ‘জাতীয় গণমাধ্যম ইনস্টিটিউট সেবাসমূহ মাইগভ প্ল্যাটফর্মে উন্মুক্তকরণ’ এবং ‘সাইবার সিকিউরিটি ইন ডেইলি লাইফ’ শীর্ষক সেমিনারে একথা জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

জাতীয় গণমাধ্যম ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) নূরুন নাহার হেনা’র সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথি ছিলেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. হুমায়ুন কবীর খোন্দকার।

মো. হুমায়ুন কবীর খোন্দকার তার বক্তব্যে বলেন, সরকার নাগরিকদের ঝামেলামুক্ত সেবা প্রদান করতে চায়। এজন্য দরকার একটা সমন্বিত প্ল্যাটফর্ম। এ উদ্দেশ্যে এসপায়ার টু ইনোভেট (এটুআই) এর সহযোগিতায় সরকার মাইগভ (mygov) প্ল্যাটফরম তৈরি করেছে।

তিনি শুরুতে জাতীয় গণমাধ্যম ইনস্টিটিউটের নাগরিক সেবাসমূহ মাইগভ প্ল্যাটফর্মে উন্মুক্তকরণের ঘোষণা দেন।

হুমায়ুন কবীর খোন্দকার বলেন, জাতীয় গণমাধ্যম ইনস্টিটিউট তার প্রধান সেবাসমূহ মাইগভ (mygov) এ অন্তর্ভুক্ত করায় অত্যন্ত আনন্দিত। আমরা আমাদের সেবাগুলো শতভাগ ডিজিটাইজেশনের আওতায় নিতে চাই। আমাদের সেবাগুলোকে ক্যাশলেস ও পেপারলেস এবং আরও নাগরিকবান্ধব করে গড়তে চাই। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্মার্ট বাংলাদেশের যে স্বপ্ন দেখেছেন তা বাস্তবায়নে অবদান রাখতে চাই।

সভাপতির বক্তব্যে নূরুন নাহার হেনা বলেন, বাংলাদেশ সরকার ২০০৮ সালে ডিজিটাল বাংলাদেশের ঘোষণা দেয়। ২০২৩ সালে স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণের লক্ষ্যে ইন্টারনেটের ব্যবহার সহজলভ্য করেছেন।

অনুষ্ঠানের মুখ্য আলোচক মোল্লা মিজানুর রহমান বলেন, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ ও মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন এবং ইউএনডিপি-এর সহায়তায় পরিচালিত এসপায়ার টু ইনোভেট (এটুআই) প্রোগ্রামের উদ্যোগে আমার সরকার বা মাইগভ প্ল্যাটফর্মটি তৈরি করা হয়েছে। যা ব্যবহার করে র্যাপিড ডিজিটাইজেশন অথবা দ্রুততম সময়ে সরকারি সেবা সমূহকে ডিজিটাইজেশনের কাজ চলমান রয়েছে।

আলোচক তানভীর হাসান জোহা তার আলোচনায় সাইবার নিরাপত্তার বিভিন্ন ঝুঁকিসমূহ ও করণীয় বিষয়ে দিক নির্দেশনা প্রদান করেন।

জাতীয় গণমাধ্যম ইনস্টিটিউটের পরিচালক মো. নজরুল ইসলাম অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বাংলাদেশ সেক্রেটারিয়েট রিপোর্টার্স ফোরামের (বিএসআরএফ) ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এম এ জলিল (মুন্না রায়হান), ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মেহদী আজাদ মাসুম, প্রশিক্ষণ ও গবেষণা সম্পাদক ফারুক আলম, এসপায়ার টু ইনোভেট (এটুআই) প্রোগ্রাম এর যুগ্ম প্রকল্প পরিচালক (যুগ্মসচিব) মোল্লা মিজানুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়াও গণমাধ্যম ইনস্টিটিউটের অতিরিক্ত মহাপরিচালক সুফী জাকির হোসেন, পরিচালক এ, কে, এম আজিজুল হক এবং পরিচালক ড. মো. মারুফ নাওয়াজ সেমিনারে আলোচনা করেন।

সেমিনারে প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়া এবং বিভিন্ন গণমাধ্যমকর্মীসহ মোট ৭০ জন প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন।