ঢাকা ০৬:৫৫ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৭ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
টপ নিউজ :
কুষ্টিয়ায় পুুকুরে ডুবে তিন শিশুর মৃত্যু মরদেহ ফেরত পেতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ দাবী পরিবারের চল্লিশ উর্ধ বয়সী স্কাউটারদের পায়ে হেঁটে ৫০ কিলোমিটার পরিভ্রমণে যাত্রা বেইলি রোডে আগুনে প্রাণ গেল ২ সাংবাদিকের কাচ্চি ভাই নয়, নিচের দোকান থেকে আগুনের সূত্রপাত: র‌্যাব বেইলি রোডে আগুন: মৃতের সংখ্যা বাড়ার কারণ জানালেন চিকিৎসক ৩ ঘণ্টার চেষ্টায় নিয়ন্ত্রণে চট্টগ্রামের নির্মাণাধীন হিমাগারের আগুন বেইলি রোডে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় রাষ্ট্রপতির শোক বেইলি রোডের আগুন লাগা বহুতল ভবনটিতে অগ্নি নির্বাপণ ব্যবস্থা ছিল না: প্রধানমন্ত্রী ভবনে ভেন্টিলেশন ছিল না, নিহতরা ধোঁয়ায় মারা গেছেন

নির্বাচন নিয়ে ভুল তথ্যের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছে টিকটক

বাংলাদেশের দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের এই সময়ে ভুল তথ্যের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া এবং নির্বাচনে একাত্মতা বজায় রাখার প্রচেষ্টা জোরদার করছে ভিডিওভিত্তিক সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টিকটক।

৪ জানুয়ারি, বৃহস্পতিবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানিয়েছে টিকটক। সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে দাবি করা হয়েছে, টিকটক এমন একটি নিরাপদ মাধ্যম, যেটি নির্বাচন-সম্পর্কিত ভুল তথ্য থেকে মুক্ত।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ভুল বা ভুয়া তথ্য শনাক্ত করার জন্য বিশ্বব্যাপী ব্যবহৃত প্রযুক্তি কাঠামোর ওপর ভিত্তি করে, টিকটক আইএফসিএন-স্বীকৃত ফ্যাক্ট-চেকিং সংস্থা নিউজচেকারের সঙ্গে মিলে বাংলাদেশের নির্বাচনী প্রেক্ষাপট পর্যালোচনায় সহযোগিতা করছে। এতে টিকটক ব্যবহারকারীদের সঙ্গে সম্ভাব্য ভুল তথ্য শনাক্ত করে এর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া এবং নির্বাচন–সম্পর্কিত গুরুত্বপূর্ণ ঘটনাগুলোর বিশ্লেষণ করে সঠিক তথ্য শেয়ার করার সক্ষমতা অর্জন করেছে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একাত্মতা বজায় রাখতে টিকটকের নেওয়া বিভিন্ন পদক্ষেপের মধ্যে রয়েছে ব্যবহারকারীদের মধ্যে সচেতনতা বাড়ানো ও অংশগ্রহণমূলক কর্মকাণ্ড তুলে ধরা। টিকটকে ‘বাংলাদেশ নির্বাচন কেন্দ্র’ নামের একটি হাব তৈরি করা হয়েছে, যা ইংরেজি ও বাংলা দুই ভাষাতেই পাওয়া যাচ্ছে। এটি ব্যবহারকারীদের ভোটদান পদ্ধতি এবং স্থানীয় এলাকাভিত্তিক নির্বাচন–সংশ্লিষ্ট বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়ে সহায়তা করছে। পাশাপাশি বিভিন্ন টুল বিভ্রান্তিকর আধেয় (কনটেন্ট) সহজে শনাক্ত করতে এবং রিপোর্ট করতে ব্যবহারকারীদের সহায়তা করবে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, টিকটক ব্যবহারকারীদের মধ্যে সচেতনতা বাড়াতে, শিক্ষামূলক আধেয় ও ইন-অ্যাপ গাইড সরবরাহ করছে। টিকটক একটি বহুমুখী পদ্ধতি ব্যবহার করে থাকে, যার মধ্যে রয়েছে ব্যবহার নীতিমালা বা কমিউনিটি গাইডলাইন লঙ্ঘিত হয়, এমন কনটেন্ট অপসারণ, যাচাই না করা তথ্য পাওয়ার হারকে কমানো ইত্যাদি।

দৌলতপুরে প্রান্তিক কৃষকের মাঝে প্রণোদনার বীজ ও সার বিতরন

নির্বাচন নিয়ে ভুল তথ্যের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছে টিকটক

আপডেট সময় ১০:৫২:২৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৪ জানুয়ারী ২০২৪

বাংলাদেশের দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের এই সময়ে ভুল তথ্যের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া এবং নির্বাচনে একাত্মতা বজায় রাখার প্রচেষ্টা জোরদার করছে ভিডিওভিত্তিক সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টিকটক।

৪ জানুয়ারি, বৃহস্পতিবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানিয়েছে টিকটক। সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে দাবি করা হয়েছে, টিকটক এমন একটি নিরাপদ মাধ্যম, যেটি নির্বাচন-সম্পর্কিত ভুল তথ্য থেকে মুক্ত।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ভুল বা ভুয়া তথ্য শনাক্ত করার জন্য বিশ্বব্যাপী ব্যবহৃত প্রযুক্তি কাঠামোর ওপর ভিত্তি করে, টিকটক আইএফসিএন-স্বীকৃত ফ্যাক্ট-চেকিং সংস্থা নিউজচেকারের সঙ্গে মিলে বাংলাদেশের নির্বাচনী প্রেক্ষাপট পর্যালোচনায় সহযোগিতা করছে। এতে টিকটক ব্যবহারকারীদের সঙ্গে সম্ভাব্য ভুল তথ্য শনাক্ত করে এর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া এবং নির্বাচন–সম্পর্কিত গুরুত্বপূর্ণ ঘটনাগুলোর বিশ্লেষণ করে সঠিক তথ্য শেয়ার করার সক্ষমতা অর্জন করেছে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একাত্মতা বজায় রাখতে টিকটকের নেওয়া বিভিন্ন পদক্ষেপের মধ্যে রয়েছে ব্যবহারকারীদের মধ্যে সচেতনতা বাড়ানো ও অংশগ্রহণমূলক কর্মকাণ্ড তুলে ধরা। টিকটকে ‘বাংলাদেশ নির্বাচন কেন্দ্র’ নামের একটি হাব তৈরি করা হয়েছে, যা ইংরেজি ও বাংলা দুই ভাষাতেই পাওয়া যাচ্ছে। এটি ব্যবহারকারীদের ভোটদান পদ্ধতি এবং স্থানীয় এলাকাভিত্তিক নির্বাচন–সংশ্লিষ্ট বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়ে সহায়তা করছে। পাশাপাশি বিভিন্ন টুল বিভ্রান্তিকর আধেয় (কনটেন্ট) সহজে শনাক্ত করতে এবং রিপোর্ট করতে ব্যবহারকারীদের সহায়তা করবে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, টিকটক ব্যবহারকারীদের মধ্যে সচেতনতা বাড়াতে, শিক্ষামূলক আধেয় ও ইন-অ্যাপ গাইড সরবরাহ করছে। টিকটক একটি বহুমুখী পদ্ধতি ব্যবহার করে থাকে, যার মধ্যে রয়েছে ব্যবহার নীতিমালা বা কমিউনিটি গাইডলাইন লঙ্ঘিত হয়, এমন কনটেন্ট অপসারণ, যাচাই না করা তথ্য পাওয়ার হারকে কমানো ইত্যাদি।