ঢাকা ০৮:৫৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের পথে স্বাগতিক অ্যাস্টন ভিলা

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে দুই গোলে এগিয়ে থেকেও জয় নিয়ে মাঠ ছাড়তে পারল না লিভারপুল। সোমবার (১৩ মে) রাতে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে ছয় গোলের থ্রিলার ম্যাচে ড্র করেছে তারা। শেষ দিকে দুই গোল করে অল রেডদের ৩-৩ ব্যবধানে রুখে দিয়েছে স্বাগতিক অ্যাস্টন ভিলা।

ভিলা পার্কে ম্যাচের শুরুতেই লিড নেয় লিভারপুল। সফরকারীদের এগিয়ে দেন অ্যাস্টন ভিলা গোলরক্ষক এমিলিয়ানো মার্টিনেজ। বিশ্বকাপজয়ী আর্জেন্টাইন তারকার হাস্যকর আত্মঘাতী গোলে এগিয়ে যায় অল রেডরা। যদিও ১০ মিনিট পরই লড়াইয়ে ফেরে স্বাগতিকরা। অ্যাস্টন ভিলাকে সমতায় ফেরান ইউরি টেলেমান্স।

২৩ মিনিটে আবারও এগিয়ে যায় লিভারপুল। এবার লিড এনে দেন ডাচ ফরওয়ার্ড কোডি গাকপো। বিরতি থেকে ফিরেই স্কোর লাইন ৩-১ করেন জারেল আমোরিন কুয়ানসাহ। দুই গোলে এগিয়ে যাওয়া লিভারপুল সহজ জয়ের অপেক্ষাতেই ছিল। কিন্তু শেষ দিকে ভড়কে যায় অল রেডরা; তিন মিনিটের মধ্যে হজম করে দুই গোল।

জোড়া গোল করে অ্যাস্টন ভিলাকে সমতায় ফেরান জন ডুরান। ৮৫ মিনিটে ব্যবধান কমান তিনি। ৮৮ মিনিটে স্কোর লাইন করেন ৩-৩। লিগের চলতি মৌসুমে এটা লিভারপুলের দশম ড্র। অ্যাস্টন ভিলার অষ্টম। অবশ্য এই ড্রয়ে তেমন ক্ষতি হয়নি অল রেডদের। কারণ, লিগ শিরোপা দৌড় থেকে আগেই ছিটকে গেছে তারা।

সেরা চারে থাকাও নিশ্চিত হয়ে আছে তাদের। আগামী মৌসুমে চ্যাম্পিয়নস লিগে ফিরবে লিভারপুল। কার্যত ৩৭ ম্যাচে ৭৯ পয়েন্ট নিয়ে ইয়ুর্গেন ক্লপের দল থাকল টেবিলের তিন নম্বরেই। লিভারপুলকে রুখে দিয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগে ফেরার স্বপ্ন বাঁচিয়ে রাখল অ্যাস্টন ভিলাও। ৩৭ ম্যাচে ৬৮ পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ স্থান ধরে রেখেছে তারা।

অর্থাৎ শেষ ম্যাচে পয়েন্ট পেলেই অ্যাস্টন ভিলার সেরা চারে থাকা নিশ্চিত। তবে আজ রাতে ম্যানচেস্টার সিটির কাছে টটেনহাম হটস্পার পয়েন্ট খোয়ালেও সুখবর পাবে দলটি। ৩৬ ম্যাচে ৮৫ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের দ্বিতীয়স্থানে আছে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন সিটি। ৩৭ ম্যাচে ৮৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আর্সেনাল।

ডিপজলের দায়িত্ব পালনে বাধা নেই চলচ্চিত্র সমিতিতে

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের পথে স্বাগতিক অ্যাস্টন ভিলা

আপডেট সময় ০৫:৪৩:৫২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৪ মে ২০২৪

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে দুই গোলে এগিয়ে থেকেও জয় নিয়ে মাঠ ছাড়তে পারল না লিভারপুল। সোমবার (১৩ মে) রাতে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে ছয় গোলের থ্রিলার ম্যাচে ড্র করেছে তারা। শেষ দিকে দুই গোল করে অল রেডদের ৩-৩ ব্যবধানে রুখে দিয়েছে স্বাগতিক অ্যাস্টন ভিলা।

ভিলা পার্কে ম্যাচের শুরুতেই লিড নেয় লিভারপুল। সফরকারীদের এগিয়ে দেন অ্যাস্টন ভিলা গোলরক্ষক এমিলিয়ানো মার্টিনেজ। বিশ্বকাপজয়ী আর্জেন্টাইন তারকার হাস্যকর আত্মঘাতী গোলে এগিয়ে যায় অল রেডরা। যদিও ১০ মিনিট পরই লড়াইয়ে ফেরে স্বাগতিকরা। অ্যাস্টন ভিলাকে সমতায় ফেরান ইউরি টেলেমান্স।

২৩ মিনিটে আবারও এগিয়ে যায় লিভারপুল। এবার লিড এনে দেন ডাচ ফরওয়ার্ড কোডি গাকপো। বিরতি থেকে ফিরেই স্কোর লাইন ৩-১ করেন জারেল আমোরিন কুয়ানসাহ। দুই গোলে এগিয়ে যাওয়া লিভারপুল সহজ জয়ের অপেক্ষাতেই ছিল। কিন্তু শেষ দিকে ভড়কে যায় অল রেডরা; তিন মিনিটের মধ্যে হজম করে দুই গোল।

জোড়া গোল করে অ্যাস্টন ভিলাকে সমতায় ফেরান জন ডুরান। ৮৫ মিনিটে ব্যবধান কমান তিনি। ৮৮ মিনিটে স্কোর লাইন করেন ৩-৩। লিগের চলতি মৌসুমে এটা লিভারপুলের দশম ড্র। অ্যাস্টন ভিলার অষ্টম। অবশ্য এই ড্রয়ে তেমন ক্ষতি হয়নি অল রেডদের। কারণ, লিগ শিরোপা দৌড় থেকে আগেই ছিটকে গেছে তারা।

সেরা চারে থাকাও নিশ্চিত হয়ে আছে তাদের। আগামী মৌসুমে চ্যাম্পিয়নস লিগে ফিরবে লিভারপুল। কার্যত ৩৭ ম্যাচে ৭৯ পয়েন্ট নিয়ে ইয়ুর্গেন ক্লপের দল থাকল টেবিলের তিন নম্বরেই। লিভারপুলকে রুখে দিয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগে ফেরার স্বপ্ন বাঁচিয়ে রাখল অ্যাস্টন ভিলাও। ৩৭ ম্যাচে ৬৮ পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ স্থান ধরে রেখেছে তারা।

অর্থাৎ শেষ ম্যাচে পয়েন্ট পেলেই অ্যাস্টন ভিলার সেরা চারে থাকা নিশ্চিত। তবে আজ রাতে ম্যানচেস্টার সিটির কাছে টটেনহাম হটস্পার পয়েন্ট খোয়ালেও সুখবর পাবে দলটি। ৩৬ ম্যাচে ৮৫ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের দ্বিতীয়স্থানে আছে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন সিটি। ৩৭ ম্যাচে ৮৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আর্সেনাল।