ঢাকা ০৯:২৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
টপ নিউজ :
কুষ্টিয়ায় পুুকুরে ডুবে তিন শিশুর মৃত্যু মরদেহ ফেরত পেতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ দাবী পরিবারের চল্লিশ উর্ধ বয়সী স্কাউটারদের পায়ে হেঁটে ৫০ কিলোমিটার পরিভ্রমণে যাত্রা বেইলি রোডে আগুনে প্রাণ গেল ২ সাংবাদিকের কাচ্চি ভাই নয়, নিচের দোকান থেকে আগুনের সূত্রপাত: র‌্যাব বেইলি রোডে আগুন: মৃতের সংখ্যা বাড়ার কারণ জানালেন চিকিৎসক ৩ ঘণ্টার চেষ্টায় নিয়ন্ত্রণে চট্টগ্রামের নির্মাণাধীন হিমাগারের আগুন বেইলি রোডে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় রাষ্ট্রপতির শোক বেইলি রোডের আগুন লাগা বহুতল ভবনটিতে অগ্নি নির্বাপণ ব্যবস্থা ছিল না: প্রধানমন্ত্রী ভবনে ভেন্টিলেশন ছিল না, নিহতরা ধোঁয়ায় মারা গেছেন

পাংশায় গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

রাজবাড়ীর পাংশায় হাওয়া বেগম (২৮) নামে এক গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তবে স্বজনদের দাবি পরিকল্পিত হত্যা।

৪ ফেব্রুয়ারি, রবিবার সকাল ৮টার দিকে উপজেলার মাছপাড়া ইউনিয়নের নিভা এনায়েতপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

মৃত গৃহবধূ নিভা এনায়েতপুর গ্রামের আব্দুল মতিন সরদারের স্ত্রী ও মাছপাড়া ইউনিয়নের খালকোলা গ্রামের কেছমত মন্ডলের মেয়ে। ঘটনার পর থেকে মতিন সরদারসহ তার পরিবারের সদস্যরা পলাতক রয়েছেন।

পরিবার ও স্থানীয়রা জানান, প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে ছাড়াছাড়ি হওয়ার পরে দ্বিতীয় বিয়ে করেন মতিন। প্রথম স্ত্রীকে কেন্দ্র করে প্রায়ই তাদের সংসারে ঝগড়া হতো।

হাওয়া বেগমের ভাই মামুন মন্ডল বলেন, ‘আমার বোনের সঙ্গে বিয়ে হওয়ার পরেও আগের স্ত্রীর সঙ্গে কথা বলত মতিন। গত কয়েক মাস আগে মতিনের প্রথম স্ত্রী এ বাড়িতে এসে এক সপ্তাহের মতো ছিল। মতিন প্রথম স্ত্রীকে আবার এই সংসারে আনবে বলেছিল। আমার বোন বাধা দেওয়ায় প্রায়ই তাকে নির্যাতন করত। আমার বোনকে মেরে ফেলা হয়েছে। এ বিষয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করব।

পাংশা মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. মিনহাজ জানান, সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। প্রাথমিক সুরতহালে গলায় রশির দাগ ছাড়া অন্য কিছু পাওয়া যায়নি। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ রাজবাড়ী মর্গে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে।

দৌলতপুরে প্রান্তিক কৃষকের মাঝে প্রণোদনার বীজ ও সার বিতরন

পাংশায় গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

আপডেট সময় ০৪:০৭:৩৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

রাজবাড়ীর পাংশায় হাওয়া বেগম (২৮) নামে এক গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তবে স্বজনদের দাবি পরিকল্পিত হত্যা।

৪ ফেব্রুয়ারি, রবিবার সকাল ৮টার দিকে উপজেলার মাছপাড়া ইউনিয়নের নিভা এনায়েতপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

মৃত গৃহবধূ নিভা এনায়েতপুর গ্রামের আব্দুল মতিন সরদারের স্ত্রী ও মাছপাড়া ইউনিয়নের খালকোলা গ্রামের কেছমত মন্ডলের মেয়ে। ঘটনার পর থেকে মতিন সরদারসহ তার পরিবারের সদস্যরা পলাতক রয়েছেন।

পরিবার ও স্থানীয়রা জানান, প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে ছাড়াছাড়ি হওয়ার পরে দ্বিতীয় বিয়ে করেন মতিন। প্রথম স্ত্রীকে কেন্দ্র করে প্রায়ই তাদের সংসারে ঝগড়া হতো।

হাওয়া বেগমের ভাই মামুন মন্ডল বলেন, ‘আমার বোনের সঙ্গে বিয়ে হওয়ার পরেও আগের স্ত্রীর সঙ্গে কথা বলত মতিন। গত কয়েক মাস আগে মতিনের প্রথম স্ত্রী এ বাড়িতে এসে এক সপ্তাহের মতো ছিল। মতিন প্রথম স্ত্রীকে আবার এই সংসারে আনবে বলেছিল। আমার বোন বাধা দেওয়ায় প্রায়ই তাকে নির্যাতন করত। আমার বোনকে মেরে ফেলা হয়েছে। এ বিষয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করব।

পাংশা মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. মিনহাজ জানান, সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। প্রাথমিক সুরতহালে গলায় রশির দাগ ছাড়া অন্য কিছু পাওয়া যায়নি। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ রাজবাড়ী মর্গে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে।