ঢাকা ১০:৪৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কুলখানি কেন্দ্র করে হামলায় নিহত ১

কুষ্টিয়ায় কুলখানির দাওয়াতকে কেন্দ্র করে স্বজনদের হামলায় বকুল বিশ্বাস (৫৫) নামে একজন নিহত হয়েছেন। এতে আহত হয়েছেন অন্তত ৫জন।

সোমবার (১৩ মে) রাত সাড়ে ১০টার দিকে ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) থানাধীন হাতিয়া গ্রামে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। নিহত বকুল একই গ্রামের আফতাব বিশ্বাসের ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, গত বৃহস্পতিবার বকুল বিশ্বাসের চাচি জাহানারা খাতুন মারা যান। এ উপলক্ষ্যে শনিবার কুলখানীর আয়োজন করা হয়। এ আয়োজনের রান্না ও দাওয়াতকে কেন্দ্র করে চাচাতো ভাই শিপনের বিশ্বাসের সাথে বকুলের বিরোধ হয়। সেই জেরে শিপনের নেতৃত্বে ২০/২৫ জন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে বকুলের ওপর হামলায় চালায়। হামলায় বকুলসহ অন্তত ৬জন আহত হয়।

পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক বকুলকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে নিহতের লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়। আহতরা চিকিৎসাধীন রয়েছে।

হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে ইবি থানার সেকেন্ড অফিসার মেহেদী হাসান জানান, সামাজিক দ্বন্দ্বের জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় একজন নিহত হয়েছে। হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে। নতুন করে সংঘর্ষ এড়াতে ওই এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

ডিপজলের দায়িত্ব পালনে বাধা নেই চলচ্চিত্র সমিতিতে

কুলখানি কেন্দ্র করে হামলায় নিহত ১

আপডেট সময় ০৫:৩৩:০২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৪ মে ২০২৪

কুষ্টিয়ায় কুলখানির দাওয়াতকে কেন্দ্র করে স্বজনদের হামলায় বকুল বিশ্বাস (৫৫) নামে একজন নিহত হয়েছেন। এতে আহত হয়েছেন অন্তত ৫জন।

সোমবার (১৩ মে) রাত সাড়ে ১০টার দিকে ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) থানাধীন হাতিয়া গ্রামে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। নিহত বকুল একই গ্রামের আফতাব বিশ্বাসের ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, গত বৃহস্পতিবার বকুল বিশ্বাসের চাচি জাহানারা খাতুন মারা যান। এ উপলক্ষ্যে শনিবার কুলখানীর আয়োজন করা হয়। এ আয়োজনের রান্না ও দাওয়াতকে কেন্দ্র করে চাচাতো ভাই শিপনের বিশ্বাসের সাথে বকুলের বিরোধ হয়। সেই জেরে শিপনের নেতৃত্বে ২০/২৫ জন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে বকুলের ওপর হামলায় চালায়। হামলায় বকুলসহ অন্তত ৬জন আহত হয়।

পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক বকুলকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে নিহতের লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়। আহতরা চিকিৎসাধীন রয়েছে।

হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে ইবি থানার সেকেন্ড অফিসার মেহেদী হাসান জানান, সামাজিক দ্বন্দ্বের জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় একজন নিহত হয়েছে। হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে। নতুন করে সংঘর্ষ এড়াতে ওই এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।