ঢাকা ০৩:৩২ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সহজ জয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু অজিদের

  • ডিপি ডেস্ক
  • আপডেট সময় ১১:৪৬:৩৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৬ জুন ২০২৪
  • 5

ক্রিকেট বিশ্বের অন্যতম বড় পরাশক্তি অস্ট্রেলিয়া। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ওয়েস্ট ইন্ডিজে হওয়া চলতি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে তারা এসেছে শিরোপার অন্যতম বড় দাবিদার হয়েই। বিশ্বকাপের শুরুটাও তারা ফেভারিটের মতোই করল। বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ওমানকে সহজেই হারিয়ে শুভসূচনা করেছে দ্বিতীয় বিশ্বকাপ জয়ের স্বপ্নে বিভোর অস্ট্রেলিয়া।

বৃহস্পতিবার (০৬ জুন) বার্বাডোজের ব্রিজটাউনে ওমানকে ৩৯ রানে হারিয়েছে মিচেল মার্শের অস্ট্রেলিয়া। টস হেরে প্রথমে ব্যাট করে মার্কাস স্টয়নিস ও ডেভিড ওয়ার্নারের ফিফটিতে ৫ উইকেটে ১৬৪ রান করে অজিরা। ১৬৫ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ৯ উইকেট হারিয়ে ১২৫ রান পর্যন্ত করতে পারে ওমান। অজিদের হয়ে সর্বোচ্চ তিনটি উইকেট নিয়েছেন মার্কাস স্টয়নিস।

বর্তমান টি-টোয়েন্টির প্রেক্ষাপটে ১৬৫ খুব বেশি বড় লক্ষ্য। তবে অস্ট্রেলিয়ার মতো দলের বিপক্ষে এই রান তাড়া করে জেতা কঠিন। এই বিষয়টি ওমান খুব ভালোভাবেই বুঝেছে আজকের ম্যাচে। তবে স্টার্ক, হ্যাজেলউড ও জাম্পার মতো বোলিং লাইন আপের সঙ্গে লড়াই করেই হেরেছে তারা।

১৬৫ রানের তাড়ায় ইনিংসের প্রথম ওভারেই ওপেনার প্রতীক আথাভাল মিচেল স্টার্কের বলে লেগ বিভোরের শিকার হন। আরেক ওপেনার প্রজাপতি অধিনায়ক আকিব ইলিয়াসকে নিয়ে এগোতে থাকেন দেখে শুনে। তবে তাদেরকে জুটিকে বেশিদূর এগোতে দেননি নাথান এলিস। দলীয় ২৩ রানে তার বলে এলবিডব্লিউ হয়ে আউট হন প্রজাপতি।

এরপর ওমানের আর কোনো ব্যাটারই তেমনভাবে প্রতিরোধ গড়তে পারেনি। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারায় ওমান। তাদের ব্যাটারদের মধ্যে আয়ান খান কেরে সর্বোচ্চ ৩৬ রান। এ ছাড়া মেহরান খানের ব্যাট থেকে ১৬ বলে ২৭ রান আসে।

অস্ট্রেলিয়ার বোলারদের মধ্যে ৩ ওভারে ১৯ রান দিয়ে ৩ উইকেট নেন স্টয়নিস। এ ছাড়া স্টার্ক, এলিস এবং জাম্পা দুটি করে উইকেট পেয়েছেন। স্বীকৃত টি-টোয়েন্টিতে এদিন ৩০০ উইকেট পার করেছেন অজি স্পিনার জাম্পা। ব্যাট হাতে অপরাজিত ৬৭ এবং বল হাতে ৩ উইকেট নেয়ায় ম্যাচসেরার পুরস্কার উঠেছে মার্কাস স্টয়নিসের হাতে।

এর আগে টসে হেরে প্রথমে ব্যাটিং করতে নেমে স্লো উইকেটে হাত খুলে খেলতে পারছিল না অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটাররা। শুরুতে বিপদে পড়লেও ওয়ার্নার ও স্টয়নিসের জোড়া অর্ধশতকে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৬৪ রানের গড়ে অজিরা। অজিদের হয়ে সর্বোচ্চ ৬৭ রান আসে স্টয়নিসের ব্যাট থেকে। এদিকে এদিস অস্ট্রেলিয়ার হয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সর্বোচ্চ রানের তালিকায় শীর্ষে উঠেছেন ডেভিড ওয়ার্নার। শেষ পর্যন্ত তিনি করেন ৫৬ রান।

সহজ জয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু অজিদের

আপডেট সময় ১১:৪৬:৩৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৬ জুন ২০২৪

ক্রিকেট বিশ্বের অন্যতম বড় পরাশক্তি অস্ট্রেলিয়া। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ওয়েস্ট ইন্ডিজে হওয়া চলতি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে তারা এসেছে শিরোপার অন্যতম বড় দাবিদার হয়েই। বিশ্বকাপের শুরুটাও তারা ফেভারিটের মতোই করল। বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ওমানকে সহজেই হারিয়ে শুভসূচনা করেছে দ্বিতীয় বিশ্বকাপ জয়ের স্বপ্নে বিভোর অস্ট্রেলিয়া।

বৃহস্পতিবার (০৬ জুন) বার্বাডোজের ব্রিজটাউনে ওমানকে ৩৯ রানে হারিয়েছে মিচেল মার্শের অস্ট্রেলিয়া। টস হেরে প্রথমে ব্যাট করে মার্কাস স্টয়নিস ও ডেভিড ওয়ার্নারের ফিফটিতে ৫ উইকেটে ১৬৪ রান করে অজিরা। ১৬৫ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ৯ উইকেট হারিয়ে ১২৫ রান পর্যন্ত করতে পারে ওমান। অজিদের হয়ে সর্বোচ্চ তিনটি উইকেট নিয়েছেন মার্কাস স্টয়নিস।

বর্তমান টি-টোয়েন্টির প্রেক্ষাপটে ১৬৫ খুব বেশি বড় লক্ষ্য। তবে অস্ট্রেলিয়ার মতো দলের বিপক্ষে এই রান তাড়া করে জেতা কঠিন। এই বিষয়টি ওমান খুব ভালোভাবেই বুঝেছে আজকের ম্যাচে। তবে স্টার্ক, হ্যাজেলউড ও জাম্পার মতো বোলিং লাইন আপের সঙ্গে লড়াই করেই হেরেছে তারা।

১৬৫ রানের তাড়ায় ইনিংসের প্রথম ওভারেই ওপেনার প্রতীক আথাভাল মিচেল স্টার্কের বলে লেগ বিভোরের শিকার হন। আরেক ওপেনার প্রজাপতি অধিনায়ক আকিব ইলিয়াসকে নিয়ে এগোতে থাকেন দেখে শুনে। তবে তাদেরকে জুটিকে বেশিদূর এগোতে দেননি নাথান এলিস। দলীয় ২৩ রানে তার বলে এলবিডব্লিউ হয়ে আউট হন প্রজাপতি।

এরপর ওমানের আর কোনো ব্যাটারই তেমনভাবে প্রতিরোধ গড়তে পারেনি। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারায় ওমান। তাদের ব্যাটারদের মধ্যে আয়ান খান কেরে সর্বোচ্চ ৩৬ রান। এ ছাড়া মেহরান খানের ব্যাট থেকে ১৬ বলে ২৭ রান আসে।

অস্ট্রেলিয়ার বোলারদের মধ্যে ৩ ওভারে ১৯ রান দিয়ে ৩ উইকেট নেন স্টয়নিস। এ ছাড়া স্টার্ক, এলিস এবং জাম্পা দুটি করে উইকেট পেয়েছেন। স্বীকৃত টি-টোয়েন্টিতে এদিন ৩০০ উইকেট পার করেছেন অজি স্পিনার জাম্পা। ব্যাট হাতে অপরাজিত ৬৭ এবং বল হাতে ৩ উইকেট নেয়ায় ম্যাচসেরার পুরস্কার উঠেছে মার্কাস স্টয়নিসের হাতে।

এর আগে টসে হেরে প্রথমে ব্যাটিং করতে নেমে স্লো উইকেটে হাত খুলে খেলতে পারছিল না অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটাররা। শুরুতে বিপদে পড়লেও ওয়ার্নার ও স্টয়নিসের জোড়া অর্ধশতকে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৬৪ রানের গড়ে অজিরা। অজিদের হয়ে সর্বোচ্চ ৬৭ রান আসে স্টয়নিসের ব্যাট থেকে। এদিকে এদিস অস্ট্রেলিয়ার হয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সর্বোচ্চ রানের তালিকায় শীর্ষে উঠেছেন ডেভিড ওয়ার্নার। শেষ পর্যন্ত তিনি করেন ৫৬ রান।