ঢাকা ০৯:১৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রিজার্ভ চুরি মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের তারিখ পেছাল ৭৮ বার

বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরি মামলায় অপরাধ তদন্ত বিভাগকে (সিআইডি) আগামী ৯ জুলাইয়ের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলেছেন আদালত।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা রায়হান উদ্দিন খান আজকের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল না করায় মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট রাজেশ চৌধুরী সোমবার এ আদেশ দেন।

যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক অব নিউইয়র্কে রক্ষিত বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভের ১০ কোটি ১০ লাখ ডলার চুরির ঘটনায় করা মামলার তদন্ত শেষ করতে এ নিয়ে ৭৮ বার সময় নিল সিআইডি।

বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ থেকে ফিলিপাইনের রিজাল কমার্শিয়াল ব্যাংকিং করপোরেশনের (আরসিবিসি) অ্যাকাউন্টগুলোতে অন্তত ৮ কোটি ১০ লাখ ডলার স্থানান্তর করা হয়, সেখান থেকে তা দেশটির ক্যাসিনোগুলোতে চলে যায়।

এ ঘটনায় ২০১৬ সালের ১৫ মার্চ বাংলাদেশ ব্যাংকের অ্যাকাউন্টস অ্যান্ড বাজেটিং ডিপার্টমেন্টের উপ-পরিচালক জোবায়ের বিন হুদা বাদী হয়ে অজ্ঞাতদের আসামি করে মতিঝিল থানায় মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইনে একটি মামলা করেন।

এখন পর্যন্ত বাংলাদেশ আরসিবিসি থেকে ১৫ মিলিয়ন ডলার পুনরুদ্ধার করেছে এবং শ্রীলঙ্কার একটি ব্যাংকে পাঠানো আরও ২০ মিলিয়ন ডলার পুনরুদ্ধার করেছে।

এর আগে চুরি যাওয়া অর্থ উদ্ধারে ২০২২ সালের ১ ফেব্রুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের আদালতে রিজাল ব্যাংকের বিরুদ্ধে মামলা করে বাংলাদেশ ব্যাংক।

ডিপজলের দায়িত্ব পালনে বাধা নেই চলচ্চিত্র সমিতিতে

রিজার্ভ চুরি মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের তারিখ পেছাল ৭৮ বার

আপডেট সময় ১২:০৩:১২ অপরাহ্ন, সোমবার, ৬ মে ২০২৪

বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরি মামলায় অপরাধ তদন্ত বিভাগকে (সিআইডি) আগামী ৯ জুলাইয়ের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলেছেন আদালত।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা রায়হান উদ্দিন খান আজকের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল না করায় মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট রাজেশ চৌধুরী সোমবার এ আদেশ দেন।

যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক অব নিউইয়র্কে রক্ষিত বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভের ১০ কোটি ১০ লাখ ডলার চুরির ঘটনায় করা মামলার তদন্ত শেষ করতে এ নিয়ে ৭৮ বার সময় নিল সিআইডি।

বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ থেকে ফিলিপাইনের রিজাল কমার্শিয়াল ব্যাংকিং করপোরেশনের (আরসিবিসি) অ্যাকাউন্টগুলোতে অন্তত ৮ কোটি ১০ লাখ ডলার স্থানান্তর করা হয়, সেখান থেকে তা দেশটির ক্যাসিনোগুলোতে চলে যায়।

এ ঘটনায় ২০১৬ সালের ১৫ মার্চ বাংলাদেশ ব্যাংকের অ্যাকাউন্টস অ্যান্ড বাজেটিং ডিপার্টমেন্টের উপ-পরিচালক জোবায়ের বিন হুদা বাদী হয়ে অজ্ঞাতদের আসামি করে মতিঝিল থানায় মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইনে একটি মামলা করেন।

এখন পর্যন্ত বাংলাদেশ আরসিবিসি থেকে ১৫ মিলিয়ন ডলার পুনরুদ্ধার করেছে এবং শ্রীলঙ্কার একটি ব্যাংকে পাঠানো আরও ২০ মিলিয়ন ডলার পুনরুদ্ধার করেছে।

এর আগে চুরি যাওয়া অর্থ উদ্ধারে ২০২২ সালের ১ ফেব্রুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের আদালতে রিজাল ব্যাংকের বিরুদ্ধে মামলা করে বাংলাদেশ ব্যাংক।