ঢাকা ০২:৫২ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিএনপির মঈন খান বক্তব্য দেওয়ার সময় ভেঙে পড়ল মঞ্চ

  • প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় ১১:২৭:১৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ মে ২০২৪
  • 7

নরসিংদীর পলাশে জিয়াউর রহমানের ৪৩তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভায় মঞ্চ ভেঙে পড়ে গেলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আবদুল মঈন খান। আজ বুধবার দুপুর ১২টার দিকে ওই আলোচনা সভায় তিনি বক্তব্য দেওয়ার সময় এ ঘটনা ঘটে। তবে এ সময় কেউ আহত হননি।

পলাশ উপজেলার চরনগরদী বাজারসংলগ্ন বিএনপির কার্যালয়ের সামনে ওই আলোচনা সভার আয়োজন করে উপজেলা বিএনপি। উপজেলা বিএনপির সভাপতি এরফান আলীর সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন আবদুল মঈন খান। তাঁর বক্তব্য দেওয়ার আগে উপজেলা, পৌর বিএনপিসহ দলের সহযোগী সংগঠনের স্থানীয় নেতা–কর্মীরা বক্তব্য দেন।

আবদুল মঈন খান তাঁর বক্তব্যে বলেন, ‘সরকার ভোটের বাক্স নিজেরা দখল করে যাকে খুশি তাকে এমপি করে নিচ্ছে। এমপির পর্যায় তারা কোথায় নামিয়ে এনেছে, তা আপনারা সাম্প্রতিক ঝিনাইদহের ঘটনায় দেখছেন।’

উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে ইঙ্গিত করে মঈন খান আরও বলেন, ‘বিএনপির ভোটাররা যেমন ভোট বর্জন করছেন, তেমনি আওয়ামী লীগের ভোটাররাও ভোট বর্জন করছেন। এই সরকার এই নির্বাচনে নিজেরাই বিভেদ তৈরি করেছে। সরকার যতই গলাবাজি করুক না কেন তারা এ দেশের গণতন্ত্রকে ধ্বংস করে দিয়েছে। নৌকা ডুবে যায়, তাই তারা স্থানীয় নির্বাচনে মার্কা উঠিয়ে দিতে বাধ্য হয়েছে।’

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, আলোচনা সভা উপলক্ষে তৈরি করা ছোট মঞ্চটিতে দাঁড়িয়ে মঈন খান যখন বক্তব্য দিচ্ছিলেন, তখন তাঁর পাশে দাঁড়িয়ে ছিলেন বেশ কিছু নেতা–কর্মী। অতিরিক্ত ভার নিতে না পেরে মঞ্চটি ভেঙে গেলে মঈন খানসহ নেতা–কর্মীরা পড়ে যান। এ সময় নেতা–কর্মীরা তাঁকে ধরে তোলেন।

মঞ্চ ভেঙে পড়ার বিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা বিএনপির সভাপতি এরফান আলী জানান, ছোট মঞ্চে বেশি সংখ্যক নেতা–কর্মী উঠেছিলেন। নেতার সঙ্গে ছবি তুলবেন বলে আরও কিছু লোক মঞ্চে উঠলে সেটি একপর্যায়ে ভেঙে পড়ে। এ ঘটনায় কেউ আহত হননি।

বিএনপির মঈন খান বক্তব্য দেওয়ার সময় ভেঙে পড়ল মঞ্চ

আপডেট সময় ১১:২৭:১৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ মে ২০২৪

নরসিংদীর পলাশে জিয়াউর রহমানের ৪৩তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভায় মঞ্চ ভেঙে পড়ে গেলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আবদুল মঈন খান। আজ বুধবার দুপুর ১২টার দিকে ওই আলোচনা সভায় তিনি বক্তব্য দেওয়ার সময় এ ঘটনা ঘটে। তবে এ সময় কেউ আহত হননি।

পলাশ উপজেলার চরনগরদী বাজারসংলগ্ন বিএনপির কার্যালয়ের সামনে ওই আলোচনা সভার আয়োজন করে উপজেলা বিএনপি। উপজেলা বিএনপির সভাপতি এরফান আলীর সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন আবদুল মঈন খান। তাঁর বক্তব্য দেওয়ার আগে উপজেলা, পৌর বিএনপিসহ দলের সহযোগী সংগঠনের স্থানীয় নেতা–কর্মীরা বক্তব্য দেন।

আবদুল মঈন খান তাঁর বক্তব্যে বলেন, ‘সরকার ভোটের বাক্স নিজেরা দখল করে যাকে খুশি তাকে এমপি করে নিচ্ছে। এমপির পর্যায় তারা কোথায় নামিয়ে এনেছে, তা আপনারা সাম্প্রতিক ঝিনাইদহের ঘটনায় দেখছেন।’

উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে ইঙ্গিত করে মঈন খান আরও বলেন, ‘বিএনপির ভোটাররা যেমন ভোট বর্জন করছেন, তেমনি আওয়ামী লীগের ভোটাররাও ভোট বর্জন করছেন। এই সরকার এই নির্বাচনে নিজেরাই বিভেদ তৈরি করেছে। সরকার যতই গলাবাজি করুক না কেন তারা এ দেশের গণতন্ত্রকে ধ্বংস করে দিয়েছে। নৌকা ডুবে যায়, তাই তারা স্থানীয় নির্বাচনে মার্কা উঠিয়ে দিতে বাধ্য হয়েছে।’

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, আলোচনা সভা উপলক্ষে তৈরি করা ছোট মঞ্চটিতে দাঁড়িয়ে মঈন খান যখন বক্তব্য দিচ্ছিলেন, তখন তাঁর পাশে দাঁড়িয়ে ছিলেন বেশ কিছু নেতা–কর্মী। অতিরিক্ত ভার নিতে না পেরে মঞ্চটি ভেঙে গেলে মঈন খানসহ নেতা–কর্মীরা পড়ে যান। এ সময় নেতা–কর্মীরা তাঁকে ধরে তোলেন।

মঞ্চ ভেঙে পড়ার বিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা বিএনপির সভাপতি এরফান আলী জানান, ছোট মঞ্চে বেশি সংখ্যক নেতা–কর্মী উঠেছিলেন। নেতার সঙ্গে ছবি তুলবেন বলে আরও কিছু লোক মঞ্চে উঠলে সেটি একপর্যায়ে ভেঙে পড়ে। এ ঘটনায় কেউ আহত হননি।