ঢাকা ০৮:১৫ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফ্লিকের হাতেই বার্সার দায়িত্ব

জাভি হার্নান্দেজের বিদায়ের পরই গুঞ্জন ছিল যে স্প্যানিশ জায়ান্ট বার্সেলোনার দায়িত্বে আসছেন সাবেক বায়ার্ন ও জার্মান কোচ হ্যান্সি ফ্লিক। অপেক্ষা ছিল শুধুই আনুষ্ঠানিক ঘোষণার। ট্রেবল জয়ী এই জার্মান কোচকে কাতালান ক্লাবটির কোচ হিসেবে পেতে অপেক্ষা যেন শেষই হচ্ছিল না বার্সা ভক্তদের। অবশেষে সেই অপেক্ষার প্রহর শেষ হলো। আসন্ন মৌসুমের জন্য নতুন কোচ পেল এই মৌসুমে ট্রফিহীন থাকা বার্সেলোনা ফুটবল ক্লাব।

বুধবার (২৯ মে) বার্সেলোনা এক সংবাদ বিবৃতিতে দুই বছরের চুক্তিতে প্রধান কোচ হিসেবে সাবেক বায়ার্ন ও জার্মান কোচ হ্যান্সি ফ্লিকের নিয়োগ নিশ্চিত করে। ৫৯ বছর বয়সী ফ্লিক বার্সার বিদায়ী কোচ জাভি হার্নান্দেজের স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন। গত সপ্তাহে বরখাস্ত হওয়ার পর রোববার জাভি শেষবারের মতো বার্সার ডাগআউটে ম্যাচ পরিচালনা করেন।

“এফসি বার্সেলোনা এবং হ্যান্সি ফ্লিক ৩০ জুন ২০২৬ পর্যন্ত বার্সা পুরুষ দলের ফুটবল কোচ হওয়ার জন্য একটি চুক্তিতে পৌঁছেছে,” বার্সা একটি বিবৃতিতে জানায়।

বার্সার বিদায়ী কোচ জাভি তার শেষ ম্যাচে সেভিয়ার বিরুদ্ধে ২-১ গোলে জয়লাভ করে ইতি টানেন। তবে এ ছাড়াও বার্সার কাছ থেকে প্রাপ্ত প্রায় ১২ মিলিয়ন ইউরো মূল্যমানের শেষ বছরের বেতন ত্যাগ করতে সম্মত হন। তবে, বার্সেলোনা তাকে ২০২১ সালে আল সাদ থেকে বেরিয়ে আসার জন্য নিজের পকেট থেকে দেওয়া ২.৫ মিলিয়ন ইউরোর অধিকাংশই ফেরত দিবে। এছাড়াও, ক্লাবটি জাভির ব্যাকরুম স্টাফের ছয় সদস্যের জন্য প্রায় ৪ মিলিয়ন ইউরো ক্ষতিপূরণ দিবে।

ফ্লিক ২০২৩ সালের সেপ্টেম্বর থেকে ফুটবলের বাইরে রয়েছেন। তিনি ২০২২ বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্যায়ে জার্মানদের ব্যর্থতা এবং একাধিক খারাপ ফলের কারণে জার্মান জাতীয় দল থেকে বরখাস্ত হন। এর আগে অবশ্য তিনি বায়ার্ন মিউনিখের সাথে দুর্দান্ত সাফল্য অর্জন করেছিলেন। ২০২০ সালে একটি ঐতিহাসিক ট্রেবল জয়ের অংশ হিসাবে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিতেছিলেন যার মধ্যে ছিল তার বর্তমান ক্লাব বার্সেলোনাকে ৮-২ গোলে বিধ্বস্ত করা ম্যাচ।

বার্সেলোনার অবশ্য ফ্লিকের প্রতি আগ্রহ নতুন নয়। ২০২১ সালের দিকে ফ্লিক বায়ার্নে থাকা অবস্থাতেই বার্সা সভাপতি হুয়ান লাপোর্তা এই জার্মানকে নিজেদের কোচ করাতে আগ্রহী হন। তবে ফ্লিক তখন জার্মানি চাকরিতে যোগ দিতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ ছিলেন। অবশ্য লাপোর্তা সংযোগ বজায় রেখেছিলেন, বিশেষ করে জানুয়ারিতে জাভি তার পদত্যাগের ইচ্ছা প্রকাশ করার পর সেই যোগাযোগ আরও বাড়ান তিনি।

বিদায়ী কোচ জাভি অবশ্য ২০২৫ সাল পর্যন্ত চুক্তি পূরণ করার পরিকল্পনায় ছিলেন। তবে ক্লাবের আর্থিক সমস্যাগুলোর ওপর তার মন্তব্য এবং লাপোর্তার সম্পূর্ণ আস্থার অভাব তাকে বরখাস্তের দিকে নিয়ে যায়। ২০২১ সালে রোনাল্ড কোম্যানের কাছ থেকে দায়িত্ব নেওয়ার পর, জাভি প্রথম মৌসুমে বার্সেলোনাকে নবম স্থান থেকে লা লিগায় দ্বিতীয় স্থানে নিয়ে যান এবং ২০২২-২৩ মৌসুমে লা লিগা শিরোপা জেতান। তবে, এই মৌসুমে কোনো শিরোপা না পাওয়ায় ক্লাবটি নতুন নেতৃত্বের সন্ধানে ছিল।

ফ্লিকের হাতেই বার্সার দায়িত্ব

আপডেট সময় ১১:৪৫:৪৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ মে ২০২৪

জাভি হার্নান্দেজের বিদায়ের পরই গুঞ্জন ছিল যে স্প্যানিশ জায়ান্ট বার্সেলোনার দায়িত্বে আসছেন সাবেক বায়ার্ন ও জার্মান কোচ হ্যান্সি ফ্লিক। অপেক্ষা ছিল শুধুই আনুষ্ঠানিক ঘোষণার। ট্রেবল জয়ী এই জার্মান কোচকে কাতালান ক্লাবটির কোচ হিসেবে পেতে অপেক্ষা যেন শেষই হচ্ছিল না বার্সা ভক্তদের। অবশেষে সেই অপেক্ষার প্রহর শেষ হলো। আসন্ন মৌসুমের জন্য নতুন কোচ পেল এই মৌসুমে ট্রফিহীন থাকা বার্সেলোনা ফুটবল ক্লাব।

বুধবার (২৯ মে) বার্সেলোনা এক সংবাদ বিবৃতিতে দুই বছরের চুক্তিতে প্রধান কোচ হিসেবে সাবেক বায়ার্ন ও জার্মান কোচ হ্যান্সি ফ্লিকের নিয়োগ নিশ্চিত করে। ৫৯ বছর বয়সী ফ্লিক বার্সার বিদায়ী কোচ জাভি হার্নান্দেজের স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন। গত সপ্তাহে বরখাস্ত হওয়ার পর রোববার জাভি শেষবারের মতো বার্সার ডাগআউটে ম্যাচ পরিচালনা করেন।

“এফসি বার্সেলোনা এবং হ্যান্সি ফ্লিক ৩০ জুন ২০২৬ পর্যন্ত বার্সা পুরুষ দলের ফুটবল কোচ হওয়ার জন্য একটি চুক্তিতে পৌঁছেছে,” বার্সা একটি বিবৃতিতে জানায়।

বার্সার বিদায়ী কোচ জাভি তার শেষ ম্যাচে সেভিয়ার বিরুদ্ধে ২-১ গোলে জয়লাভ করে ইতি টানেন। তবে এ ছাড়াও বার্সার কাছ থেকে প্রাপ্ত প্রায় ১২ মিলিয়ন ইউরো মূল্যমানের শেষ বছরের বেতন ত্যাগ করতে সম্মত হন। তবে, বার্সেলোনা তাকে ২০২১ সালে আল সাদ থেকে বেরিয়ে আসার জন্য নিজের পকেট থেকে দেওয়া ২.৫ মিলিয়ন ইউরোর অধিকাংশই ফেরত দিবে। এছাড়াও, ক্লাবটি জাভির ব্যাকরুম স্টাফের ছয় সদস্যের জন্য প্রায় ৪ মিলিয়ন ইউরো ক্ষতিপূরণ দিবে।

ফ্লিক ২০২৩ সালের সেপ্টেম্বর থেকে ফুটবলের বাইরে রয়েছেন। তিনি ২০২২ বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্যায়ে জার্মানদের ব্যর্থতা এবং একাধিক খারাপ ফলের কারণে জার্মান জাতীয় দল থেকে বরখাস্ত হন। এর আগে অবশ্য তিনি বায়ার্ন মিউনিখের সাথে দুর্দান্ত সাফল্য অর্জন করেছিলেন। ২০২০ সালে একটি ঐতিহাসিক ট্রেবল জয়ের অংশ হিসাবে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিতেছিলেন যার মধ্যে ছিল তার বর্তমান ক্লাব বার্সেলোনাকে ৮-২ গোলে বিধ্বস্ত করা ম্যাচ।

বার্সেলোনার অবশ্য ফ্লিকের প্রতি আগ্রহ নতুন নয়। ২০২১ সালের দিকে ফ্লিক বায়ার্নে থাকা অবস্থাতেই বার্সা সভাপতি হুয়ান লাপোর্তা এই জার্মানকে নিজেদের কোচ করাতে আগ্রহী হন। তবে ফ্লিক তখন জার্মানি চাকরিতে যোগ দিতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ ছিলেন। অবশ্য লাপোর্তা সংযোগ বজায় রেখেছিলেন, বিশেষ করে জানুয়ারিতে জাভি তার পদত্যাগের ইচ্ছা প্রকাশ করার পর সেই যোগাযোগ আরও বাড়ান তিনি।

বিদায়ী কোচ জাভি অবশ্য ২০২৫ সাল পর্যন্ত চুক্তি পূরণ করার পরিকল্পনায় ছিলেন। তবে ক্লাবের আর্থিক সমস্যাগুলোর ওপর তার মন্তব্য এবং লাপোর্তার সম্পূর্ণ আস্থার অভাব তাকে বরখাস্তের দিকে নিয়ে যায়। ২০২১ সালে রোনাল্ড কোম্যানের কাছ থেকে দায়িত্ব নেওয়ার পর, জাভি প্রথম মৌসুমে বার্সেলোনাকে নবম স্থান থেকে লা লিগায় দ্বিতীয় স্থানে নিয়ে যান এবং ২০২২-২৩ মৌসুমে লা লিগা শিরোপা জেতান। তবে, এই মৌসুমে কোনো শিরোপা না পাওয়ায় ক্লাবটি নতুন নেতৃত্বের সন্ধানে ছিল।