ঢাকা ১০:৫১ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গরমে তালশাঁস খাওয়ার উপকারিতা

  • ডিপি ডেস্ক
  • আপডেট সময় ০১:০৫:৩১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ মে ২০২৪
  • 8

গরমে তালশাঁস খাওয়ার উপকারিতা

গ্রীষ্মের ফলের মধ্যে তালশাঁস অন্যতম। এটি গ্রীষ্মকালীন সুপারফুড হিসাবে পরিচিত। সুস্বাদু স্বাদের এই ফলটি স্বাস্থ্যের জন্যও সমান উপকারী। তালশাঁসে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার, ভিটামিন এ এবং ভিটামিন কে এর মতো পুষ্টি উপাদান পাওয়া যায়। এটি খাওয়ার সাথে সাথেই শরীর হাইড্রেটেড হয়। আবার পেটও ঠান্ডা হয়ে যায়। প্রচণ্ড গরমে একটু স্বস্তি পেতে এই ফলটি খেতে পারেন।

হাইড্রেট রাখে : প্রচণ্ড তাপদাহে শরীর গরম হতে শুরু করে। এর ফলে শরীরে পানির অভাব দেখা দেয়। এই পরিস্থিতিতে তালের শাঁস খেলে তাৎক্ষণিক শরীর হাইড্রেট হয়। ডিহাইড্রেশন থেকে নিজেকে রক্ষা করতে এই ফলটি খান।

পেটের সমস্যায় উপকারী: প্রচণ্ড গরমে অনেকেই পেটের সমস্যায় ভোগেন। তালশাঁস খেলে পেট তাৎক্ষণিকভাবে ঠান্ডা হয়। এটি খেলে পরিপাকতন্ত্র শক্তিশালী হয়। এর ফলে কোষ্ঠকাঠিন্য, বদহজম এবং গ্যাসের সমস্যা কমে।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়: দুর্বল ইমিউন সিস্টেমের কারণে মানুষ খুব দ্রুত সংক্রামক রোগে আক্রান্ত হয়। তাই রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে ভিটামিন সি সমৃদ্ধ তালশাঁস খান।

বিপাকক্রিয়া বাড়ায়: দুর্বল বিপাকক্রিয়ার কারণে ওজন বাড়তে থাকে এবং মানুষ স্থূলতার শিকার হয়। ফাইবার সমৃদ্ধ এই ফলটি খেলে বিপাকক্রিয়া দ্রুত বৃদ্ধি পায়। এছাড়াও, এটি খেলে দীর্ঘক্ষণ ক্ষুধা অনুভূত হয় না।

ডায়াবেটিসে উপকারী: তালশাঁস ডায়াবেটিস রোগীদের জন্যও উপকারী। এতে গ্লাইসেমিক ইনডেক্স খুবই কম, যা রক্তের শর্করা নিয়ন্ত্রণ করে।

সূত্র: ইন্ডিয়া টিভি

ডিপজলের দায়িত্ব পালনে বাধা নেই চলচ্চিত্র সমিতিতে

গরমে তালশাঁস খাওয়ার উপকারিতা

আপডেট সময় ০১:০৫:৩১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ মে ২০২৪

গরমে তালশাঁস খাওয়ার উপকারিতা

গ্রীষ্মের ফলের মধ্যে তালশাঁস অন্যতম। এটি গ্রীষ্মকালীন সুপারফুড হিসাবে পরিচিত। সুস্বাদু স্বাদের এই ফলটি স্বাস্থ্যের জন্যও সমান উপকারী। তালশাঁসে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার, ভিটামিন এ এবং ভিটামিন কে এর মতো পুষ্টি উপাদান পাওয়া যায়। এটি খাওয়ার সাথে সাথেই শরীর হাইড্রেটেড হয়। আবার পেটও ঠান্ডা হয়ে যায়। প্রচণ্ড গরমে একটু স্বস্তি পেতে এই ফলটি খেতে পারেন।

হাইড্রেট রাখে : প্রচণ্ড তাপদাহে শরীর গরম হতে শুরু করে। এর ফলে শরীরে পানির অভাব দেখা দেয়। এই পরিস্থিতিতে তালের শাঁস খেলে তাৎক্ষণিক শরীর হাইড্রেট হয়। ডিহাইড্রেশন থেকে নিজেকে রক্ষা করতে এই ফলটি খান।

পেটের সমস্যায় উপকারী: প্রচণ্ড গরমে অনেকেই পেটের সমস্যায় ভোগেন। তালশাঁস খেলে পেট তাৎক্ষণিকভাবে ঠান্ডা হয়। এটি খেলে পরিপাকতন্ত্র শক্তিশালী হয়। এর ফলে কোষ্ঠকাঠিন্য, বদহজম এবং গ্যাসের সমস্যা কমে।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়: দুর্বল ইমিউন সিস্টেমের কারণে মানুষ খুব দ্রুত সংক্রামক রোগে আক্রান্ত হয়। তাই রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে ভিটামিন সি সমৃদ্ধ তালশাঁস খান।

বিপাকক্রিয়া বাড়ায়: দুর্বল বিপাকক্রিয়ার কারণে ওজন বাড়তে থাকে এবং মানুষ স্থূলতার শিকার হয়। ফাইবার সমৃদ্ধ এই ফলটি খেলে বিপাকক্রিয়া দ্রুত বৃদ্ধি পায়। এছাড়াও, এটি খেলে দীর্ঘক্ষণ ক্ষুধা অনুভূত হয় না।

ডায়াবেটিসে উপকারী: তালশাঁস ডায়াবেটিস রোগীদের জন্যও উপকারী। এতে গ্লাইসেমিক ইনডেক্স খুবই কম, যা রক্তের শর্করা নিয়ন্ত্রণ করে।

সূত্র: ইন্ডিয়া টিভি