ঢাকা ০৮:৫১ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গাজার যোদ্ধাদের ফাঁদে পড়ে ৪ ইসরায়েলি সেনা নিহত

  • ডিপি ডেস্ক
  • আপডেট সময় ১০:০৭:৫৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১১ জুন ২০২৪
  • 10

ফিলিস্তিনের গাজায় আরও চার ইসরায়েলি সেনা নিহত হয়েছে। মঙ্গলবার (১১ জুন) তাদের পরিচয় প্রকাশ করে দেশটির প্রতিরক্ষাবাহিনী (আইডিএফ)। এর আগে সোমবারের (১০ জুন) এক ঘটনায় তারা নিহত হন। বিয়টিকে ফাঁদ হিসেবে দেখছে আইডিএফ।

নিহতরা হলেন- মেজর তাল পশেবিলস্কি শাওলভ (২৪), স্টাফ সার্জেন্ট এতিন কার্লসব্রান (২০), সার্জেন্ট আলমোগ শালম (১৯) ও সার্জেন্ট ইয়ার লেভিন (১৯)। শালম ও লেভিন প্রশিক্ষণার্থী ছিলেন। শাওলভ তাদের কোম্পানি কমান্ডার ছিলেন।

আইডিএফ জানায়, দক্ষিণ গাজার রাফা শহরে একটি ভবনে অভিযানে যায় সেনারা। তারা ভবনটি পর্যবেক্ষণে রাখে। সেখান থেকে হামাসের হামলার আশঙ্কা ছিল। তাই সরাসরি প্রবেশ না করে বোমা ছোড়া হয়।

কিন্তু তাতে কোনো প্রতিক্রিয়া না পেয়ে প্রবেশ করে ইসরায়েলি সেনারা। তিনতলা ভবনটিতে প্রবেশের কিছুক্ষণের মধৌ ভয়াবহ বিস্ফোরণ হয়। ভবনের ধ্বংসস্তূপে চাপা পড়েন কয়েকজন সেনা।

এ ঘটনাকে ফাঁদ হিসেবে দেখছে ইসরায়েলি প্রতিরক্ষাবাহিনী। তাদের দাবি, ভবনটিতে হামাসের সুড়ঙ্গ থাকার প্রমাণ মিলেছে। এর মানে এখানে হামাস যোদ্ধারা ছিল।

আইডিএফ আরও জানায়, নিহত চার সেনা ছাড়াও আরও সাতজন আহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে পাঁচজনের অবস্থা গুরুতর। এ নিয়ে গাজায় হামাসের বিরুদ্ধে স্থল অভিযান শুরুর পর ২৯৯ সেনা হারাল ইসরায়েল।

ইসরায়েলে হামাসের নজিরবিহীন হামলার পর গত বছরের ৭ অক্টোবর থেকে গাজায় হামলা শুরু করে নেতানিয়াহুর বাহিনী। গাজার স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষের মতে, ইসরায়েলের হামলায় সাড়ে ৩৬ হাজারের বেশি ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। যাদের বেশিরভাগই নারী ও শিশু। এ ছাড়া ৮৩ হাজারের বেশি আহত হয়েছেন। এদের অনেকের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

এদিকে গাজায় তীব্র হয়েছে খাদ্য, বিশুদ্ধ পানি ও ওষুধের সংকট। ধ্বংসস্তূপের নিচে চাপা পড়ে আছে বহু লাশ।

গাজার যোদ্ধাদের ফাঁদে পড়ে ৪ ইসরায়েলি সেনা নিহত

আপডেট সময় ১০:০৭:৫৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১১ জুন ২০২৪

ফিলিস্তিনের গাজায় আরও চার ইসরায়েলি সেনা নিহত হয়েছে। মঙ্গলবার (১১ জুন) তাদের পরিচয় প্রকাশ করে দেশটির প্রতিরক্ষাবাহিনী (আইডিএফ)। এর আগে সোমবারের (১০ জুন) এক ঘটনায় তারা নিহত হন। বিয়টিকে ফাঁদ হিসেবে দেখছে আইডিএফ।

নিহতরা হলেন- মেজর তাল পশেবিলস্কি শাওলভ (২৪), স্টাফ সার্জেন্ট এতিন কার্লসব্রান (২০), সার্জেন্ট আলমোগ শালম (১৯) ও সার্জেন্ট ইয়ার লেভিন (১৯)। শালম ও লেভিন প্রশিক্ষণার্থী ছিলেন। শাওলভ তাদের কোম্পানি কমান্ডার ছিলেন।

আইডিএফ জানায়, দক্ষিণ গাজার রাফা শহরে একটি ভবনে অভিযানে যায় সেনারা। তারা ভবনটি পর্যবেক্ষণে রাখে। সেখান থেকে হামাসের হামলার আশঙ্কা ছিল। তাই সরাসরি প্রবেশ না করে বোমা ছোড়া হয়।

কিন্তু তাতে কোনো প্রতিক্রিয়া না পেয়ে প্রবেশ করে ইসরায়েলি সেনারা। তিনতলা ভবনটিতে প্রবেশের কিছুক্ষণের মধৌ ভয়াবহ বিস্ফোরণ হয়। ভবনের ধ্বংসস্তূপে চাপা পড়েন কয়েকজন সেনা।

এ ঘটনাকে ফাঁদ হিসেবে দেখছে ইসরায়েলি প্রতিরক্ষাবাহিনী। তাদের দাবি, ভবনটিতে হামাসের সুড়ঙ্গ থাকার প্রমাণ মিলেছে। এর মানে এখানে হামাস যোদ্ধারা ছিল।

আইডিএফ আরও জানায়, নিহত চার সেনা ছাড়াও আরও সাতজন আহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে পাঁচজনের অবস্থা গুরুতর। এ নিয়ে গাজায় হামাসের বিরুদ্ধে স্থল অভিযান শুরুর পর ২৯৯ সেনা হারাল ইসরায়েল।

ইসরায়েলে হামাসের নজিরবিহীন হামলার পর গত বছরের ৭ অক্টোবর থেকে গাজায় হামলা শুরু করে নেতানিয়াহুর বাহিনী। গাজার স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষের মতে, ইসরায়েলের হামলায় সাড়ে ৩৬ হাজারের বেশি ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। যাদের বেশিরভাগই নারী ও শিশু। এ ছাড়া ৮৩ হাজারের বেশি আহত হয়েছেন। এদের অনেকের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

এদিকে গাজায় তীব্র হয়েছে খাদ্য, বিশুদ্ধ পানি ও ওষুধের সংকট। ধ্বংসস্তূপের নিচে চাপা পড়ে আছে বহু লাশ।